KM Farhan https://www.kmfarhan.com/2021/03/blog-post_3.html

ফোনে চার্জ আগের মত বেশিক্ষণ না থাকলে যেভাবে তা ঠিক করবেন।

আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ, একটি বিষয় হয়তো আপনি খেয়াল করে দেখেছেন। আমরা যদি নতুন কোন ফোন কিনে থাকি কিছুদিন বেশ ভালো যাওয়ার পরে, একবার চার্জ দিলে আর আগের মত বেশিখন চার্জ থাকেনা। 

তাই আজকে আলোচনা করব ফোনের চার্জ বেকাপ কিভাবে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সক্রিয় রাখা যায়। এর আগে কিছু বিষয় জেনে নিন।

যদি লেখা পড়তে ভালো না লাগে , এ বিষয়ে ভিডিও দেখতে চাইলে ক্লিক করেন।

বেশ কিছুদিন ধরে একটা জিনিস হয়ত খেয়াল করেছেন বাজারে আসা ফোনগুলোর ব্যাটারির ধরন অনেক পাল্টে গিয়েছে। মানে বুঝাতে চাচ্ছি ফোনের সাথে ব্যাটারিগুলো সিল করা থাকে যার কারণে আমরা ব্যাটারিগুলো খুলতে পারি না।

যেকোনো সমস্যায় সার্ভিসিং সেন্টারে ফোনটি নিয়ে যেতে হয়। আমরা যদি ফোনের যত্ন নেই তাহলে এর ক্যামেরা প্রসেসর বেশ অনেকদিন ভালো থাকে পাঁচ থেকে দশ বছর পর্যন্ত ফোনটি  টিকিয়ে রাখা যায়। কিন্তু এর ব্যাটারি ব্যাকআপ এক থেকে দের বছর পর খারাপ হতে শুরু করে।

তাই আজকে আপনাকে আমি জানাবো, ফোনে চার্জ আগের মত বেশিক্ষণ না থাকলে যেভাবে তা ঠিক করবেন।

  1. আমাদের যেভাবে ফোন চার্জ করি তার অভ্যাস বদলাতে হবে।
  2. ফোনের চার্জ 30% এর নিচে নামলে এর ব্যবহার বন্ধ করতে হবে, ফোন চালু থাকলে এতে সমস্যা নেই।
  3. যখন ফোনটি চার্জ দিব 90 থেকে 95 পার্সেন্ট এর বেশি চার্জ দিব না।
  4. যতটকু সম্ভব চার্জ দেওয়ার সময় ঠান্ডা স্থানে রাখতে হবে ফোনটি।
  5. অনেক বেশী কার্যকর ফোন বন্ধ করে চার্জ দেওয়া।
  6. দিনে অন্তত এক বা দুইবার ফোন রিস্টার্ট দেওয়া।
  7. আমাদের দেশে ফোনের ব্যাটারি তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ দেশের তাপমাত্রা । গরম আবহাওয়ায় ফোনের ব্যাটারির সেল গুলোতে চার্জ ধরে রাখার ক্ষমতা কমতে থাকে। তাই মাঝে মধ্যে আপনার ফ্রিজের নরমালে ফোনটি 30 মিনিট রেখে দিতে পারেন এতে ব্যাটারির সেল গুলোর চার্জ ধরে রাখার ক্ষমতা বাড়বে। সাথে প্রসেসর এবং ব্যাটারি উভয় ভালো থাকবে।
  8. ফোনের সাথে যে চার্জার দেওয়া হয়েছে এর চাইতে কম ভোল্টের চার্জার ব্যবহার করতে হবে।
  9. ফোন চার্জে লাগানো অবস্থায় যে কোনো কাজ বা গেম খেলা থেকে বিরত থাকতে হবে।

ফোনের ব্যাটারি সম্বন্ধে কিছু তথ্য:

আপনারা যদি রিচার্জেবল ব্যাটারি কখনো কিনে থাকেন বা পাওয়ার ব্যাংকই কিনে থাকেন, ব্যাটারিকে একটা জিনিস লেখা দেখবেন। ৫০০ রিচার্জ সাইকেল বা ১০০০ রিচার্জ সাইকেল এর মানে হল, ১% থেকে ১০০% পর্যন্ত চার্জ ১ রিচার্জ সাইকেল বলে । অথবা ১০০% থেকে ১% এ ডিসচার্জ হওয়া।

ঠিক একইভাবে একেকটা ফোন ১০০০ রিচার্জ সাইকেল থেকে দেড় হাজার রিচার্জ সাইকেল হয়ে থাকে। প্রতিদিন আপনি যদি গড়ে ১ রিচার্জ সাইকেল ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনার ফোনের ব্যাটারি ১০০০ বা ১৫০০ দিন অব্দি ভালো থাকবে।

এর চাইতে যদি বেশি আপনি ব্যবহার করে থাকেন দিনে 2 রিচার্জ সাইকেল তাহলে ৫০০ বা ৭৫০ দিন ভালো থাকবে।

এরপর ব্যাটারির চার্জ ধরে রাখার ক্ষমতা কমতে থাকবে, উপরে যে নিয়মগুলো দিয়েছি ওই নিয়মগুলো আপনি ফলো করলে আপনার ফোনের ব্যাটারি অনেকটা ভালো পারফরম্যান্স দিবে।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া