KM Farhan https://www.kmfarhan.com/2020/11/blog-post_78.html

৮ টি রচনার টিপস যা প্রকৃতপক্ষে আপনাকে আরও ভাল লেখক করে তুলবে

 লেখার কাজ কেবল লেখক করবে এমন নয় সারা জীবন আমাদের লেখার কাজ চালিয়ে যেতে হয়। আপনি ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, কবি, সমাজবিদ, বিজ্ঞানী যাই হন না কেন লেখার কাজ কিন্তু প্রতিদিন করতে হয়। কিন্তু আপনি যদি একজন ভালো লেখক হতে চান তাহলে আপনাকে কিছু দিক নির্দেশনা মানতেই হবে। আজকের পোস্টে ভালো লেখার কিছু টিপস নিয়ে হাজির হয়েছি আশা করি আপনাকে এই টিপসগুলো সাহায্য করবে :

১. উচ্চাকাঙ্ক্ষা নিয়ে শুরু করুন

কোনো কিছু করার প্রধান শর্ত হলো শুরু করা। তাই আপনি যে ভাবে আছেন ঠিক সেখান থেকে শুরু করুন। শুরু করুন কোন একটি বর্ণনা বা উদাহরণ দিয়ে যা পাঠককে আপনার লেখা পড়তে সঠিক মেজাজ এনে দেবে। 

২. মূল বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

আপনি যে বিষয় নিয়ে লিখছেন সে বিষয় সম্পর্কে আপনার যথাযথ জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। তাই কোন কিছু নিয়ে লেখার আগে সেই বিষয় সম্পর্কে ভালো করে জেনে নিতে হবে। আপনি যদি একটা বিষয় সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রাখেন তাহলে সে বিষয়ে স্বাচ্ছন্দে লিখতে পারবেন এবং প্রয়োজনীয় তথ্য যোগ করতে পারবেন। যখন কোন বিষয় নিয়ে লিখতে যাবেন তখন সে বিষয়ে বিভিন্ন বই পড়তে পারেন এতে করে আপনার সৃজনশীলতা বৃদ্ধি পাবে।

৩. লেখার বিষয়বস্তুকে পাঠকের চোখে দেখুন

লেখার বিষয়বস্তু সমৃদ্ধ না হলে আপনি পাঠককে আকর্ষণ করতে পারবে না। আপনার লেখার বিষয়টিকে পাঠকের দৃষ্টিকোণ থেকে দেখার চেষ্টা করো। ভেবে দেখুন লেখার মধ্যে পাঠকের কী কী বিষয়ে সমস্যা হতে পারে, সে সমস্যাগুলোর সমাধান করুন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো কোন শ্রেণির পাঠকের উদ্দেশ্যে লিখছেন তা ঠিক করুন। যে লেখাটি আপনি ছোটদের জন্য লিখছেন সেটা তো আর বড়দের লেখার মত গুরুগম্ভীর হলে চলবে না, তাই না?

লেখাকে আরো সমৃদ্ধ করতে মনীষীদের বাণী থেকে উদ্ধৃতি দিতে পারেন। এছাড়া প্রাসঙ্গিক পরিসংখ্যান, চার্ট কিংবা গ্রাফও ব্যবহার করা যায়। তবে, যাই ব্যবহার করে না কেন, তা যেন সঠিক হয়। সম্ভব হলে তথ্যসূত্র উল্লেখ করে দিন।

৪. সুপারম্যানের মতো লিখুন (অথবা যে লোক সম্পর্কে জানেন যে সে সত্যিই দ্রুত লিখে)

আপনি ব্লগিং করছেন, ছোটো গল্প লিখছেন, আপনার বিদ্যালয়ের ইংরেজি ক্লাসের জন্য সৃজনশীল লেখার অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে কাজ করছেন কিংবা আপনার পছন্দের উপন্যাস লিখছেন। এতো কিছু লিখতে হবে কিন্তু সময় খুব সিমিত।

সুতরাং আপনি যদি প্রতিদিন লিখতে আরো সময় চান তবে আপনাকে কেবল দুটি কাজ করতে হবে :

  • একটি নির্জন রুমে গিয়ে লিখুন।
  • দ্রুত লিখতে শিখুন।

৫. সঠিক শব্দ ব্যবহার করুন

শব্দের সঠিক ব্যবহার, সঠিক মেটাফোর বা রূপকের ব্যবহার একজন লেখকের লেখায় অনেক ম্যাচিউরিটি, অনেক বড় মাত্রা নিয়ে আসতে পারে। এসবের দুর্বল ব্যবহার শুধু তার দীনতাই ফুটিয়ে তোলে। তাই এ ব্যাপারে সতর্ক হোন।

৬. পরিশ্রম করুন

সব কাজের জন্যই পরিশ্রম প্রয়োজন। তেমনি লেখার ক্ষেত্রে ও ব্যতিক্রম নয়। ভালো লেখার জন্য দুটো জিনিস লাগবে।
  •  পড়া
  • লেখা 
লেখার জন্য আপনাকে প্রথমে পড়তে হবে কারন আপনি না জানলে তো লিখতে পারবেন না। মনে রাখবেন যিনি পড়েন না তিনি ভালো লিখতেও পারবেন না।

৭. সব জায়গায় লিখতে নিজেকে চ্যালেঞ্জ করুন

একটি মনোনীত লেখার স্থান (বিশেষ করে যখন আপনি বাড়ি থেকে কাজ করছেন) গুরুত্বপূর্ণ। যাইহোক, সময়ে-সময়ে বিভিন্ন জায়গায় লেখা সৃজনশীলতা স্পার্ক করতে পারেন।
এটি করতে চেষ্টা করুন।

৮. দৃঢ় ভাবে শেষ করুন

লেখার শেষে আপনার জানা সবচেয়ে শক্তিশালী শব্দ বা বাক্য গুচ্ছ ব্যবহার করুন। আপনি কি ধরণের শব্দ বাছাই করছেন সেদিকে খেয়াল রাখুন। এমনকি শক্তিশালী, বা জোর রয়েছে এমন সিলেবল দিয়ে শেষ করার চেষ্টা করুন।

মনে রাখবেন শেষের শব্দগুলোই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া